মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ।মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট হল বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের নিহত ও আহত মুক্তিযোদ্ধাদের পরিবারের কল্যাণে নিয়োজিত একটি সরকারি মালিকানা ও নিয়ন্ত্রণাধীন সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠান। সম্প্রতি মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট জব সার্কুলার প্রকাশ করেছে।আগ্রহী ও যোগ্য ব্যক্তিদের আবেদন করার আহব্বান করা হচ্ছে।

১।পদের নামঃ আইন উপদেষ্টা

পদের সংখ্যাঃ ০১

যোগ্যতাঃ অবসরপ্রাপ্ত অতিরিক্ত সচীব /অবসর প্রাপ্ত জেলা সচীব হতে হবে।

বেতনঃ ৩৫,৫০০-৬৭,০১০ টাকা।

 

২।পদের নামঃ প্রোগ্রামার

পদের সংখ্যাঃ ০১

শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং এ স্নাতোকোত্তর সহ চার বছরের স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রী

বেতনঃ ৩৫,৫০০-৬৭,০১০ টাকা।

 

৩।পদের নামঃ সহকারী প্রধান হিসাব নিরীক্ষক

পদের সংখ্যাঃ ০১

শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ সিএ /এমকম বা সমমানের ডিগ্রী

বেতনঃ ৩৫,৫০০-৬৭,০১০ টাকা

 

৪।পদের নামঃ সহকারী প্রকৌশলী

পদের সংখ্যাঃ ০১

শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ সিএ /এমকম বা সমমানের ডিগ্রী

বেতনঃ ৩৫,৫০০-৬৭,০১০ টাকা

 

৫।পদের নামঃ হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা

পদের সংখ্যাঃ ০১

শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ হিসাব বিজ্ঞান/অর্থনীতী/পরিসংখ্যান বিষয়ে স্নাতকোত্তর সহ স্নাতক ডিগ্রী

বেতনঃ ৩৫,৫০০-৬৭,০১০ টাকা

 

সরকারি বেসরকারি সব ধরনের চাকরির খবর সবার আগে পাবেন এই ওয়েবসাইটে teamnewses.com । তাই যেকোনো ধরনের চাকরির খবর পেতে ভিজিট করুন

আমাদের ওয়েবসাইটে ।মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২১ সম্পর্কিত যাবতীয় তথ্য দেখতে নিচের ছবিটি লক্ষ্য করুন -বিস্তারিত তথ্য দেখুন নিচের ছবিতে।

 

মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২১

 

Application Deadline: 11 April 2021

Official Website: www.bffwt.gov.bd

 

 

Source: Ittefaq, 27 March 2021

Application Deadline: 11 April 2021

Official Website: www.bffwt.gov.bd

মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২১

আবেদন নিয়ম:

আগ্রহী প্রার্থীকে লিখিত আবেদন, জীবন-বৃত্তান্ত এবং ১ম শ্রেণীর গেজেটেড অফিসার কর্তৃক সত্যায়িত ০৩(তিন) কপি ছবিসহ
২০-০১-২০২১

তারিখের মধ্যে সচিব, বাংলাদেশ মুক্তিযােদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট, স্বাধীনতা ভবন, ৮৮, মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকা, ঢাকা-১০০০ বরাবর পৌছাতে হবে

মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট ১৯৭২ সালের সেপ্টেম্বরে রাষ্ট্রপতির এক আদেশবলে প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠার পর থেকে ১৯৮২ সাল পর্যন্ত এটি ত্রাণ ও গণপুর্ত মন্ত্রণালয়ের অধীন ছিল

এবং ১৯৮২-২০০১ সাল পর্যন্ত প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের। ২০০১ সালে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় গঠিত হলে, এ ট্রাস্টকে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীনে নেওয়া হয়।

 

মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট

ট্রাস্টের তহবিল যোগানের জন্য ৩২টি শিল্প ও বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করে, তার মধ্যে বাংলাদেশ সরকার বিভিন্ন সময়ে ২৯টি শিল্প ও বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান ট্রাস্টকে দান করেছে,

বাকি ৩টি নিজ উদ্যোগে প্রতিষ্ঠা করেছে। এছাড়া মুক্তিযোদ্ধাদের মাসিক ভাতা প্রদানের জন্য প্রতি বছর ১৬ কোটি টাকার বাজেট প্রদান করে।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *